আচ্ছা! প্রথম ট্রেকিং শুরু করতে কি কি লাগে? 1st time trek? check this trekking gear list!

সারাদিন পাথর, জঙ্গল দিয়ে হেঁটে হেঁটে বেড়ানোর মতো কষ্টকর ট্রেকিং করতে হলে কিছু প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র লাগে তারই একটা লিস্টি বানিয়ে দিলাম

ট্রেকিং –এর মতো অ্যাডভেঞ্চারাস ট্রাভেলের প্রচলন হওয়ার পর থেকে, এমনি বাক্স প্যাঁটরা নিয়ে ঘুরতে যাওয়ার ইচ্ছেটা অনেকের মধ্যেই কমে যাচ্ছে। কিন্তু, সারাদিন পাথর, জঙ্গল দিয়ে হেঁটে হেঁটে বেড়ানোর মতো কষ্টকর ট্রেকিং করতে হলে কিছু প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র লাগে যেটা সচরাচর ঘুরতে যেতে লাগে না।

আমি নিজেও যখন প্রথমবার গেছিলাম তখন আমিও চিন্তায় পড়ে গেছিলাম – “ ওরে বাবা ফার্স্ট টাইম ট্রেক –এ যাচ্ছি, কি কি নিতে হবে কি করে জানব? কেউ একজন বলে দিলে ভালো হয় ”।

তাই তোমাদের যাতে প্রথম ট্রেকিং -এই অসুবিধা না হয় আমার নিজস্ব অভিজ্ঞতা অনুযায়ী একটা লিস্টি বানিয়ে দিলাম –

ধুর! এতো কে পড়বে, তার থেকে লিস্টের PDF ডাউনলোড করে ফেলি

প্রথমে মাথার সুরক্ষার জন্য মোটামুটি যা কিছু লাগে
*উলের কান ঢাকা টুপি (woollen cap)১টা
সাধারণ টুপি (normal P cap)১টা
*হনুমান টুপি (monkey cap)১টা
পাতলা ফেট্টি (Bandana)১টা
*সানগ্লাস (UV protected)২টো
*লিপ বাম (lip balm) ১টা
সানস্ক্রিন লোসন SPF 30 বা তার অপরে১টা
শরীরের অপরের অংশ ঢাকার জন্য যেগুলো প্রয়োজন –
*ফুল হাতা পাতলা টি-শার্ট(full sleeve t-shirt)২টো
পশমের (Fleece) টি-শার্ট১টা
*পশমের জ্যাকেট (fleece jacket)১টা
*ডাউন জ্যাকেট অথবা হলোফিল জ্যাকেট (Down jacket)১টা
* রেনকভার জ্যাকেট অথবা পঞ্চ ১টা
পশমের হাতমোজা (fleece handgloves)২ জোড়া
ওয়াটার প্রুফ হাতমোজা (waterproof gloves)১ জোড়া
ট্রেকিং-এ উলের টুপির ছবি, ছবিটা সান্দাকফু ট্রেকিং -এর নয়
Photo by Jeff Hopper on Unsplash
কমরের নিচ থেকে পা পর্যন্ত –
ট্রেকিং প্যান্ট অথবা ট্র্যাক প্যান্ট (normal track pant)২টো
*রেনকভার প্যান্ট অথবা পঞ্চ ১টা
থার্মাল ইনার (Thermal inner)১ সেট
পা যা কিছু দিয়ে ঢাকবে –
*হাই নেক ট্রেকিং বুট (trekking shoe)১ জোড়া
*সুতির মোজা (cotton socks)ন্যুনতম ২ জোড়া
উলের মোজা (woolen socks)২ জোড়া
ট্রেকিং জুতা Trekking boot
Photo by Simon Migaj on Unsplash
পরার জিনিসপত্র বাদে কিছু অতি প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র –
*রুক্‌স্যাক বা ব্যাকপ্যাক ৪৫L বা তার ওপরে, রেনকভার সমেত (ruckshak with raincover)
**স্লিপিং ব্যাগ, স্লিপিং ম্যাট, টেন্ট
*জলের বোতল ১ লিটার করে ২টো
মেস্‌টিন, কাপ এবং চামচ ১টা করে
হেড টর্চ এবং এমনি টর্চ অতিরিক্ত ব্যাটারি সমেত (Head Torch with extra cells) ১টা করে
ওয়াকিং স্টিক (walking stick) বা ট্রেকিং পোল (trekking pole)১টা / ২টো
কিছু শুকনো খাওয়ার বাতাম, কিশমিশ এরকম ধরনের (dry foods)
*পেন কিলার বাম বা স্প্রে (pain killar balm or sprey)
অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল পাউডার এবং Odomos বা যেকোনও মশা প্রতিরোধক লোশন্‌
*নিজস্ব দরকারি ওষুধ, ব্যান্ডেড, ক্রেপ ব্যান্ডেজ
*টয়লেট পেপার (toilet paper)
পেপার সোপ১ প্যাকেট
*টুথব্রাশ এবং টুথপেস্ট
হ্যান্ড স্যানিটাইজার (hand sanitizer)
ছোট ছুরি বা মাল্টিটুল ১টা
*সূচ সুতো, টেপ ১টা করে
*স্যানিটারি প্যাড ( মেয়েদের জন্য )

-যেগুলো অতি অবশ্যই কাজে লাগে * দিয়ে চিহ্নিত করে দিয়েছি –

Poncho পঞ্চ নিলে মাথা থেকে পা পর্যন্ত পুরো ঢাকা পরে যায়।

ট্রেকিং -এ যাওয়ার সামগ্রী
Photo by Alexander Andrews on Unsplash

‘আমি গ্রামবাংলার মানুষ, সেই অনুযায়ী কিছু সামগ্রীর কথা শেয়ার করলাম যেগুলো আমি ট্রেকিং -এ ব্যবহার করি’-

  • একটা অতিরিক্ত ক্যারি ব্যাগ সঙ্গে রাখবে বাতিল জিনিস পত্র রাখার জন্য
  • ভেতরে পরার জন্য সুতির দাদু গেঞ্জি, সুতির জাঙ্গিয়া ২ টো। কারন নাইলনের জামাকাপড়ের থেকে অনেক বেশি মলায়ম এবং সাস্থকর হয়।
  • শক্তিবাম বা টাইগারবাম ধরনের ব্যাথা বেদনার মলম, বোরোলিন, এবং একটা ছোট্ট জায়গায় সরষের তেল (যতই সেকেলে লাগুক, মালিশ করে স্লিপিং ব্যাগের ভেতোর ঘুমানোর মজাই আলাদা )।
যেগুলো না থাকলে সাধারনত ট্রেকিং -এ খুব অসুবিধা হয়না –

ব্রান্ডেড কোম্পানির ট্রেকিং প্যান্ট , টি-শার্ট ফুল হাতা, থার্মাল ইনার, ওয়াকিং স্টিক, ডে প্যাক, বডি স্প্রে।

যারা নিজে নিজে ট্রেকিং এ যেতে চাও কোনও এজেন্সি ছাড়াই মানে সোলো ট্রেকিং তাদের জন্য এই লেখাটা প্রযোজ্য নাও হতে পারে

অবশেষে বলি, যা কিছুই নাও ব্রান্ডেড হোক বা নাই হোক মন যদি শক্ত না হয়, তাহলে কিন্তু ট্রেকে ভীষণ কষ্ট পেতে হয়। ট্রেকিং –এ গিয়ে আমি নিজে শিখেছি ততটাই জিনিসপত্র নিতে হবে যতটা আমার সত্যি প্রয়োজন এবং নিজে ক্যারি করতে পারবো। তাতে হাঁটতে খুবই আনন্দ লাগে।

লিস্টে যদি জিনিসপত্র সম্বন্ধে কিছু ভুল ত্রুটি থাকে তাহলে কমেন্ট করে জানালে ভীষণ খুশি হব। আর প্লিজ অবশ্যই শেয়ার করো। খুব ভালো করে ট্রেক করো। আর কেমন ঘুরলে অবশ্যই জানিও।

লিস্টের PDF ডাউনলোড করতে ক্লিক করো এখানে


“ আমি ভাই বিশাল বড় পণ্ডিত নই যে বানান নিয়ে গবেষণা করে তবেই লিখছি। কোনও প্রকাশক দারা প্রুফ করানোও নেই। আমার ইচ্ছে হয়েছে, মাতৃভাষা যেটুকু জানি সেটা দিয়েই যাতে মানুষের কাজে লাগাতে পারি তারই চেষ্টা করেছি।” যদি কোনোরকম ভুল দেখতে পান প্লিজ্‌ কমেন্ট বক্সে বা মেসেজ করে জানালে খুব ভালো লাগবে। ধন্যবাদ!